Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রকল্প

১। সমাপ্ত প্রকল্প সমূহঃ

 

(ক) কুড়িগ্রাম বন্যা নিয়ন্ত্রন ও নিষ্কাশন  প্রকল্প (দক্ষিণ ইউনিট)ঃ

 

বাস্তবায়ন কালঃ ১৯৭৫-১৯৭৮

 

প্রধান অঙ্গ সমূহঃ

 

১১৪ কিমিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ, ১৭টি রেগুলেটর, ৫.৬৫০ কিমিঃ নদীতীর সংরক্ষণ কাজ, ২টি গ্রোয়েন (গ্রোয়েন এ ও গ্রোয়েন বি), ১টি  সলিড, স্পার ও ১৩ টি ক্রসবার (তিস্তা নদীতে ৫ টি, ধরলাতে ৬ টি এবং ব্রহ্মপুত্রে ২ টি )। 

 

এলাকাঃ

 

প্রকল্পের অভ্যমত্মরে কুড়িগ্রাম শহরাঞ্চল, রাজারহাট, উলিপুর ও চিলমারী উপজেলা শহর, উলিপুর তিসত্মা ৫০ কিমিঃ রেললাইন, প্রায় ৫০ কিমিঃ পাকা রাস্তা, ৮০০ কিমিঃ কাঁচা রাস্তা, চিলমারী বন্দরসহ বহু সরকারী ও বেসরকারী সহাপনা।

 

বন্যা মুক্ত এলাকাঃ ১১৭১৮৪ হেক্টর।

 

সমস্যাঃ

দক্ষিন ইউনিটের ১১৪ কিঃ মিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের কুড়িগ্রাম পওর বিভাগের আওতায় ৯৩ কিঃ মিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের মধ্যে ৮ (আট) টি স্থানে ১২.৭০০ কিঃ মিঃ এবং উত্তর ইউনিটের ৯৬  কিঃ মিঃ বাঁধের মধ্যে অত্র বিভাগের আওতায়র ৪১ কিঃ মিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের মধ্যে ৩ (তিন) টি স্থানে ১০.৪০০ কিঃ মিঃ সহ সর্বমোট ২৩.১০০ কিঃমিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ বিগত ২০১০ সাল হতে ২০১৬ সালের বন্যায় অধিক ঝু্&&কপূর্ণ/ (Breached)   অবস্থায় আছে যা পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে পুনঃনির্মান করা প্রয়োজন।

 

(খ) কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী উপজেলাধীন বৈরাগীরহাট এবং চিলমারী বন্দর এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের ডান তীর রক্ষা প্রকল্প (ফেজ-১)।

বাস্তবায়ন কালঃ জুলাই ২০০৭ থেকে জুন ২০০৯

ব্যয়ঃ  ৯৬৮৮.০০ লক্ষ টাকা

নদীতীর সংরখন প্রকল্পঃ : ৩ কিমিঃ

 

(গ) ‘‘গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলাধীন সাঘাটা বাজার ও তৎসংলগ্ন এলাকা যমুনা নদীর ভাঙ্গন হতে রক্ষা এবং কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলাধীন দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের (বিওপি ক্যাম্পের নিকট) সাহেবের আলগা নামক সহানে ব্রহ্মপুত্র নদের বামতীর সংরক্ষণ প্রকল্প’’ রৌমারী উপজেলাধীন সাহেবের আলগা নামক সহান।

প্রকল্প ব্যয়ঃ ১৮৬৯১.৮০ লক্ষ টাকা।

কুড়িগ্রাম অংশে নদী তীর সংরক্ষণ কাজ ২০৬৫ মিটার ( ব্যয় ৪৬.৭৭ লক্ষ টাকা)।

(ঘ) কুড়িগ্রাম জেলার ভূরম্নঙ্গামারী উপজেলাধীন সোনাহাট ব্রীজের সন্নিকটে দুধকুমার নদীর ভাঙ্গন হতে ভূরম্নঙ্গামারী-মাদারগঞ্জ সড়ক রক্ষা এবং উলিপুর উপজেলার গুনাইগাছ হতে বজরা সিনিয়র মাদ্রাসা পর্যন্ত তিস্তা নদীর বামতীর সংরক্ষণ প্রকল্প।

বাস্তবায়ন কালঃ ০১ জুলাই ২০১২ হতে ৩০ জুন ২০১৭ পর্যমত্ম

প্রধান অঙ্গ সমূহঃ নদীতীর সংরক্ষন কাজ=১৯৩২ মিঃ ১ টি টি হেড গ্রোয়েন ও ১ টি স্পার।

প্রকল্প ব্যয়ঃ ৫৪৮০.১৯

(ঙ) কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী ও উলিপুর উপজেলাধীন বৈরাগীরহাট ও চিলমারী বন্দর এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের ডান তীর রক্ষা প্রকল্প (ফেজ-২)

বাসত্মবায়ন কালঃ নভেমবর/২০১২ হতে জুন ২০১৭ পর্যন্ত।

প্রধান অঙ্গ সমূহঃ নদীতীর সংরক্ষন কাজ=৬৪৫০ মিঃ ও ১ টি স্পার পূনর্বাসন/পূনঃনির্মান।

প্রকল্প ব্যয়ঃ ২৫৬৯১.৭৯

(চ) জলবায়ু পরিবর্তন জনিত প্রভাব মোকাবেলায় কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলাধীন জিঞ্জিরাম (সীমান্ত) নদীর ভাঙ্গন হতে বামতীর রক্ষা প্রকল্প।

বাসত্মবায়ন কালঃ বাস্তবায়নকালঃ নভেম্বর/২০১২  হতে  জুন/২০১৭

প্রধান অঙ্গ সমূহঃ রৌমারী উপজেলার বারবান্দা নামক সহানে।

প্রকল্প ব্যয়ঃ ৯৯.৪০

২। বাস্তবায়িতব্য প্রকল্প সমুহ

(i)  প্রকল্পের নাম  :  কুড়িগ্রাম জেলার কুড়িগ্রাম সদর ও রাজারহাট উপজেলাধীন ধরলা নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণসহ বাম ও ডানতীর সংরক্ষন প্রকল্প।   

 

   প্রকল্পের প্রধান উদ্দেশ্য;   

  • ধরলা নদীর ভয়াবহ ভাঙ্গন হতে কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলার কালোয়া নামক স্থান ও সদর উপজেলার বাংটুরঘাট, সারডোব, ভোগডাঙ্গা,ভেরভেরী, হিমেরকুটি,পাঁচগাছি,মোগলবাসা,সিতাইঝাড় এলাকা রক্ষা  করণ।
  • কুড়িগ্রাম জেলার সদর ও রাজারহাট উপজেলা বন্যার কবল হতে রক্ষা করণ।
  • নদীর গতি পথ পরিবর্তন প্রতিরোধ করা।
  • সামাজিক নিরাপত্তাসহ এলাকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন অব্যহত রাখা।
  • পরিবেশের বিরূপ প্রভাব হতে প্রকল্প এলাকার পরিবেশের ভারসাম্য র করা।
  • প্রকল্পটি বাসত্মবায়িত হলে প্রকল্প এলাকায় অবস্থিত প্রায় ১৫৬৪১৯.৫০ লক্ষ টাকার স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি নদী ভাংগন ও বন্যার কবল হতে রক্ষা পাবে।
  •  

 প্রকল্পের প্রধান প্রধান অঙ্গের নাম,ঃ

 

অঙ্গের নাম

একক

পরিমান

ব্যয় (লক্ষ টাকা)

     পরিমাণ ও প্রক্কলিত ব্যয়

 

ভূমি অধিগ্রহন

হেক্টর

৩০.৭০

২৬৯৪.৫০

 

 

নদীর তীর সংরক্ষন কাজ

কিঃমিঃ

১৩.৩৬৯

৩৩৩৮৬.০৯

 

 

নদীর ড্রেজিং কাজ

কিঃমিঃ

৫.০০

৬৩৫৮.১৬

 

 

 

 

বন্যানিয়ন্ত্রন বাঁধ নির্মান

কিঃমিঃ

১০.৫৫০

১৩৩১.৮৩

 

 

বাঁধ পূনারাকৃতিকরন

কিঃমিঃ

১৭.৯০

১১৫৩.৯৫

 

 

অনান্য

-

থোক

২১০৫.১৮

 

 

মোট=

৪৭০২৯.৭১

 

(ii) প্রকল্পের নাম :  ‘‘কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট ও উলিপুর উপজেলায় সিরিজ টি-হেড গ্রোয়েন নির্মানের মাধ্যমে তিসত্মা নদীর বামতীর সংরক্ষন প্রকল্প’’  

 
 

 

প্রকল্পের প্রধান উদ্দেশ্য: 

  ১.  টি-হেড সিরিজ গ্রোয়েন নির্মানের মাধ্যমে প্রায় ৪০ কিঃমিঃ তিসত্মা নদীর  

       বামতীর নদী শাসনেরমাধ্যমে নদী  ভাঙ্গন রোধ।

  ২. নদীর নব্যতা বৃদ্ধি।

  ৩  ভূমি পুনরম্নদ্ধার।

  ৪. জনসম্পদ ও প্রাকৃতিক সম্পদের উৎস সমূহের নিরাপত্তা

  ৫.  আর্থসামাজিক ও অন্যান্য ক্ষেত্রের টেকসই উন্নয়ন

 

 

প্রকল্পের প্রধান প্রধান অঙ্গের নাম,ঃ

 

অঙ্গের নাম

একক

পরিমান

ব্যয় (লক্ষ টাকা)

     পরিমাণ ও প্রক্কলিত ব্যয়

 

টি-হেড গ্রোয়েন নির্মান

টি

১৩৩০০.০০

 

 

নদীর ড্রেজিং কাজ

কিঃমিঃ

৪.৫

৪৭০৫.৩০

 

 

 

 

বাঁধ পূনারাকৃতিকরন

কিঃমিঃ

১৫.০০

১২৫০.৮০

 

 

অনান্য

-

থোক

৫৪৪.৭০

 

 

মোট=

১৯৮০০.৮০

(iii) প্রকল্পের নাম : ‘‘কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী ও উলিপুর উপজেলাধীন বৈরাগীরহাট ও চিলমারী বন্দর এলকায়  ব্রহ্মপূত্র নদের ডানতীর সংরক্ষন ও ড্রেজিং প্রকল্প (ফেজ-৩)’’

 

প্রকল্পের প্রধান উদ্দেশ্যঃ

  • ব্রহ্মপুত্র নদের ভয়াবহ ভাঙ্গন হতে কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার অনমত্মপুর এলাকার নয়ারদারা এবং চিলমারী উপজেলার ফকিরেরহাট, জোড়গাছ, চিলমারী বন্দর ও পাশ^বর্তী এলাকা রক্ষা করা এই প্রকল্পের মূল উদ্দ্যেশ্য ।
  • নদীর গতি পথ পরিবর্তন প্রতিরোধ করা।
  • সামাজিক নিরাপত্তাসহ এলাকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন অব্যহত রাখা।
  • পরিবেশের বিরম্নপ প্রভাব হতে প্রকল্প এলাকার পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করা।

 প্রকল্পের প্রধান প্রধান অঙ্গের নামঃ

 

অঙ্গের নাম

একক

পরিমান

ব্যয় (লক্ষ টাকা)

     পরিমাণ ও প্রক্কলিত ব্যয়

 

ভূমি অধিগ্রহন

হেক্টর

৩.০০

২৪৭.৩০

 

 

নদীর তীর সংরক্ষন কাজ

কিঃমিঃ

৪.৮০

২৩৮০১.১৪

 

 

নদীর ড্রেজিং কাজ

কিঃমিঃ

২০.০০

২৪৮৬৩.৭০

 

 

রেগুলেটর নির্মান

টি

৮১২.৯১

 

 

বন্যানিয়ন্ত্রন বাঁধ নির্মান

কিঃমিঃ

১.০০

২৪২.৬৩

 

 

বাঁধ পূনারাকৃতিকরন

কিঃমিঃ

৫২.৭০

২১৩০.২৪

 

 

অনান্য

-

থোক

৬৮২.০০

 

 

মোট=

৫২৭৭৯.৯২

 (iv) প্রকল্পের নাম : কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার ঘুঘুমারী হতে ফুলুয়ার চর ঘাট ও রাজিবপুর উপজেলা সদর (মেম্বার পাড়া) হতে মোহনগঞ্জ বাজার পর্যমত্ম ব্রহ্মপূত্র নদের ভাঙ্গন হতে বামতীর সংরক্ষণ ও ড্রেজিং প্রকল্প।

 

প্রকল্পের প্রধান উদ্দেশ্য : 

  • ব্রহ্মপুত্র নদের ভয়াবহ ভাঙ্গন হতে কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার ঘুঘুমারী হতে ফুলুয়ার চর ঘাট ও রাজিবপুর উপজেলা সদর (মেম্বার পাড়া) হতে  মোহনগঞ্জ বাজার পর্যমত্ম ব্রহ্মপূত্র নদের বামতীর ভাঙ্গন হতে রক্ষা করা এই প্রকল্পের মূল উদ্দ্যেশ্য।
  • নদীর গতি পথ পরিবর্তন প্রতিরোধ করা।
  • সামাজিক নিরাপত্তাসহ এলাকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন অব্যহত রাখা।
  • ড্রেজিং এর মাধ্যমে ভূমি পূনরম্নদ্ধার করা।
  • পরিবেশের বিরম্নপ প্রভাব হতে প্রকল্প এলাকার পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করা।

 

 প্রকল্পের প্রধান প্রধান অঙ্গের নাম,ঃ

 

অঙ্গের নাম

একক

পরিমান

ব্যয় (লক্ষ টাকা)

      ঈরিমান ও প্রাক্কলিত ব্যয়

 

নদীর তীর সংরক্ষন কাজ

কিঃমিঃ

৭.৩০০

৪০৮১১.২৩

 

 

নদীর ড্রেজিং কাজ

কিঃমিঃ

২৫.০০

৩১০৭৯.৭৫

 

 

 

 

অনান্য

-

থোক

১০৬৬.০২

 

 

মোট=

৭২৯৫৭.০০

(v) কুড়িগ্রাম জেলার অভ্যন্তর দিয়ে প্রবাহিত বুড়ি তিস্তা নদীর উৎসমুখে স্লুইস গেট নির্মান এবং পুনঃখনন প্রকল্প।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)