Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রকল্প

১। সমাপ্ত প্রকল্পঃ

 

(ক) কুড়িগ্রাম বন্যা নিয়ন্ত্রন ও নিষ্কাশন  প্রকল্প (দক্ষিণ ইউনিট)ঃ

 

বাস্তবায়ন কালঃ ১৯৭৫-১৯৭৮

 

প্রধান অঙ্গ সমূহঃ

 

১১৪ কিমিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ, ১৭টি রেগুলেটর, ৫.৬৫০ কিমিঃ নদীতীর সংরক্ষণ কাজ, ২টি গ্রোয়েন (গ্রোয়েন এ ও গ্রোয়েন বি), ১টি  সলিড, স্পার ও ১৩ টি ক্রসবার (তিস্তা নদীতে ৫ টি, ধরলাতে ৬ টি এবং ব্রহ্মপুত্রে ২ টি )। 

 

এলাকাঃ

 

প্রকল্পের অভ্যমত্মরে কুড়িগ্রাম শহরাঞ্চল, রাজারহাট, উলিপুর ও চিলমারী উপজেলা শহর, উলিপুর তিসত্মা ৫০ কিমিঃ রেললাইন, প্রায় ৫০ কিমিঃ পাকা রাস্তা, ৮০০ কিমিঃ কাঁচা রাস্তা, চিলমারী বন্দরসহ বহু সরকারী ও বেসরকারী সহাপনা।

 

বন্যা মুক্ত এলাকাঃ ১১৭১৮৪ হেক্টর।

 

সমস্যাঃ

দক্ষিন ইউনিটের ১১৪ কিঃ মিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের কুড়িগ্রাম পওর বিভাগের আওতায় ৯৩ কিঃ মিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের মধ্যে ৮ (আট) টি স্থানে ১২.৭০০ কিঃ মিঃ এবং উত্তর ইউনিটের ৯৬  কিঃ মিঃ বাঁধের মধ্যে অত্র বিভাগের আওতায়র ৪১ কিঃ মিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের মধ্যে ৩ (তিন) টি স্থানে ১০.৪০০ কিঃ মিঃ সহ সর্বমোট ২৩.১০০ কিঃমিঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ বিগত ২০১০ সাল হতে ২০১৬ সালের বন্যায় অধিক ঝু্&&কপূর্ণ/ (Breached)   অবস্থায় আছে যা পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে পুনঃনির্মান করা প্রয়োজন।

 

(খ) কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী উপজেলাধীন বৈরাগীরহাট এবং চিলমারী বন্দর এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের ডান তীর রক্ষা প্রকল্প (ফেজ-১)।

বাস্তবায়ন কালঃ জুলাই ২০০৭ থেকে জুন ২০০৯

ব্যয়ঃ  ৯৬৮৮.০০ লক্ষ টাকা

দৈর্ঘ্যঃ ২.৫ কিমিঃ

 

(গ) ‘‘গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলাধীন সাঘাটা বাজার ও তৎসংলগ্ন এলাকা যমুনা নদীর ভাঙ্গন হতে রক্ষা এবং কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলাধীন দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের (বিওপি ক্যাম্পের নিকট) সাহেবের আলগা নামক সহানে ব্রহ্মপুত্র নদের বামতীর সংরক্ষণ প্রকল্প’’ রৌমারী উপজেলাধীন সাহেবের আলগা নামক সহান।

প্রকল্প ব্যয়ঃ ১৮৬৯১.৮০ লক্ষ টাকা।

কুড়িগ্রাম অংশে নদী তীর সংরক্ষণ কাজ ২০৬৫ মিটার ( ব্যয় ৪৬.৭৭ লক্ষ টাকা)।

 

২। চলমান উল্লেখযোগ্য প্রকল্পের তথ্যঃ

 

জেলার নাম

প্রকল্পের নাম

অবস্থান

প্রাক্কলিত অর্থ (লক্ষ টাকায়)

অগ্রগতি

কাজের ধরন/ প্রধান অঙ্গ

কুড়িগ্রাম জেলা

কুড়িগ্রাম জেলার ভূরম্নঙ্গামারী উপজেলাধীন সোনাহাট ব্রীজের সন্নিকটে দুধকুমার নদীর ভাঙ্গন হতে ভূরম্নঙ্গামারী-মাদারগঞ্জ সড়ক রক্ষা এবং উলিপুর উপজেলার গুনাইগাছ হতে বজরা সিনিয়র মাদ্রাসা পর্যন্ত তিস্তা নদীর বামতীর সংরক্ষণ প্রকল্প।

বাস্তবায়ন কালঃ

০১ জুলাই ২০১২ হতে

৩০ জুন ২০১৭ পর্যমত্ম

ভূরম্নঙ্গামারী উপজেলাধীন সোনাহাট ব্রীজের সন্নিকটে এবং উলিপুর উপজেলার গুনাইগাছ হতে বজরা সিনিয়র মাদ্রাসা পর্যমত্ম এলাকা।

৫৪৮০.১৯

৯০%

সহায়ী তীর সংরক্ষণ কাজ ২১০০ মিটার। গ্রোয়েন ১টি। স্পার ১টি। সেমিপারমানেন্ট তীর সংরক্ষণ কাজ ৩০০ মিটার।

কুড়িগ্রাম জেলা

কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী ও উলিপুর উপজেলাধীন বৈরাগীরহাট ও চিলমারী বন্দর এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের ডান তীর রক্ষা প্রকল্প (ফেজ-২)

বাসত্মবায়ন কালঃ নভেমবর/২০১২ হতে জুন ২০১৭ পর্যন্ত।

কুড়িগ্রাম জেলার অনমত্মপুর কাঁচকোল ও চিলমারী বন্দর এলাকা

২৫৬৯১.৭৯

৯২%

তীর সংরক্ষণ কাজ ৬৪৫০ মিটার স্পার ১টি।

কুড়িগ্রাম জেলা

জলবায়ু পরিবর্তন জনিত প্রভাব মোকাবেলায় কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলাধীন জিঞ্জিরাম (সীমান্ত) নদীর ভাঙ্গন হতে বামতীর রক্ষা প্রকল্প।

রৌমারী উপজেলার বারবান্দা নামক সহানে।

৯৯.৪০

৮৫%

তীর সংরক্ষণ কাজ ২৪০ মিটার

 

  • বাস্তবায়নকালঃ নভেম্বর/২০১২  হতে  জুন/২০১৭

৩। বাস্তবায়িতব্য প্রকল্প সমুহ

(ক) মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রম্নতঃ কুড়িগ্রাম জেলার ১৬টি নদ-নদীর ড্রেজিং প্রকল্প।

 

(খ) কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী ও উলিপুর উপজেলাধীন বৈরাগীরহাট ও চিলমারী বন্দর এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের ডান তীর রক্ষা প্রকল্প (ফেজ-৩)।

 

প্রকল্পের প্রধান অঙ্গ সমুহঃ নদী ড্রেজিং ২০.০০ কিমিঃ, তীর সংরক্ষণ কাজ ৪.৮ কিমিঃ (ফকিরেরহাট ও জোড়গাছ) ও অনমত্মপুরে ১টি রেগুলেটর নির্মান (৮ ভেন্ট)।

 

 

(গ) কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলার ব্রহ্মপুত্র নদের বাম তীর সংরক্ষণ প্রকল্প।

 

প্রকল্পের প্রধান অঙ্গ সমুহঃ  নদী তীর সংরক্ষণ কাজ ৭.৩ কিমিঃ ( রৌমারী উপজেলার ঘুঘুমারী হতে ফুলুয়ার চর ঘাট পর্যমত্ম ৩.৫০০ কিমিঃ রাজীবপুর উপজেলা সদর হতে মেহনগঞ্জ বাজার পর্যমত্ম ৩.৮০০ কিমিঃ), নদী ড্রেজিং ২৫ কিমিঃ (ফুলুয়ার চর ও কোদালকাটি এলাকায় মৃত চ্যানেলটি ড্রেজিং এর মাধ্যমে বন্ধ করা হলে ৭৫০০ একর কৃষি জমি উদ্ধারসহ প্রায় ২৭০০০ একর পতিত জমি আবাদি জমিতে পরিনত হবে)।

 

(ঘ) কুড়িগ্রাম জেলার সদর উপজেলার শহর সংলগ্ন ধরলা নদীর উভয় তীরে ভাঙ্গন রোধে বাংটুরঘাট, মোগলবাসা, ভোগডাঙ্গা ও পাঁচগাছি নামক সহানে পাউবো বঁধের সবচেয়ে ঝুকিপূর্ণ ডানতীরে সহায়ী প্রতিরক্ষামুলক কাজ।

 

প্রকল্পের প্রধান অঙ্গ সমুহঃ  সহায়ী প্রতিরক্ষামুলক কাজের দৈর্ঘ্য ১২.৫০০ কিমিঃ

ছবি


সংযুক্তি